History

অপাঠ্য ইতিহাসের ঐতিহাসিক পাঠ

আমরা ইতিহাস পড়ি। কিন্তু দেখিনা। কেও তো আর ছবি তুলে রাখে নি যে দেখবো। আর ছবি তুললে রাখলেও লাভ হতো বলে মনে হয় না। দেখার সময় কম।

এইসময়ে ট্রাফিক জ্যামে বসে ঝিমিয়ে নেওয়া যেতে পারে। ঝিমানো স্বাস্থ্যের জন্য ভালো। ঝিমলে ঘুম আসে আর ঘুমালে স্বপ্ন দেখা যায়। মনীষীরা বলেন, স্বপ্ন দেখো। মনীষীদের কথা তো অমান্য করা যায় না তাই আমাদের দরকার অধিক পরিমাণে ঝিমানো, ঘুমানো এবং স্বপ্ন দেখা।

কিন্তু যাদের ঘুম আসে না। জ্যামে বসে ইমসমনিয়া হয় তারা কি করবে? আকাশ দেখলেও বাতাস দেখা যায় না বিধায় আকাশ দেখে ধৈর্য হারালে কিছু করার নেই। উপরি হিসেবে ফোনে চার্জ শেষ হলে তো পুরো বেকার।

এইদিকে আবার বেকারেরা আকাশ কুসুম স্বপ্ন দেখতে পছন্দ করে। তারমানে ঝিমলে স্বপ্ন দেখে এবং জাগনা থাকলেও স্বপ্ন দেখে। দুনিয়া স্বপ্ন ময়।

তবে ফ্যাসাদ’ময় একটা প্রশ্ন ঝামেলা করে, স্বপ্নে কি দেখে? উত্তর অতীত, বর্তমান, ভবিষ্যৎ এবং স্বপ্ন। স্বপ্নে কিন্তু স্বপ্নও দেখে। আর সেই সব দেখতে দেখতে মানুষ নানান কিসিমের কাজ করে ফেলে।
অতীতেও মানুষ ঝিমাতো, ঘুমতো, স্বপ্ন দেখতো এবং নানা কিছু করে ফেলত।  অতীতের এইসব ঝিমানো, ঘুমানো, স্বপ্ন দেখা গুলো নিয়েই হলো আমাদের ইতিহাস।

আমি ইতিহাসবিদ নই। তবে ইতিহাস বলতে বলতে ঐতিহাসিক চরিত্রে পরিণত হয়ে যাওয়ার মতো কাজ হাতে নিয়েছি। আমার বলা ইতিহাস সিরিয়াস ভাবে না নিলেও সিরিয়াস ভাবে না নেওয়ারও কিছু নেই।

খেলা তবে হোক শুরু !